মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ১০:২৬ পূর্বাহ্ন

নারীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ, সাতজনের যাবজ্জীবন

সংবাদ দাতার নাম
  • প্রকাশের সময় : বুধবার, ১২ জুলাই, ২০২৩
  • ৪৯ বার পড়া হয়েছে

Nagad
Bengal

 

Video Player is loading.

Loaded: 0.57%

রাজবাড়ীর পাংশায় নারীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের পর হত্যার দায়ে সাতজনের যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত।

 

বুধবার (১২ জুলাই) দুপুরে রাজবাড়ী জেলা এবং দায়রা জজ আদালতের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. সাব্বির ফয়েজ এ রায় দেন।

 

দণ্ডপ্রাপ্ত ব্যক্তিরা হলেন, কুষ্টিয়া সদর থানার আমলাপাড়া চরের গুলাই প্রামানিকের স্ত্রী জয়গুন, রাজবাড়ী পাংশার হাবাসপুরের আনছার দাইয়ের ছেলে রফিকুল ইসলাম ওরফে রফিক, ওমর আলী প্রামানিকের ছেলে রঞ্জু ওরফে রঞ্জুর হোসেন, মৃত গহর প্রামানিকের ছেলে দেলু ওরফে দেলোয়ার হোসেন প্রামানিক, মৃত জসিম সরদারের ছেলে মাসুদ ওরফে মাসুদ রানা, জিয়েলগাই এলাকার আফতাব উদ্দিনের ছেলে আশরাফ ও ছেকেন সরদারের ছেলে অজো ওরফে হজো ওরফে হযরত আলী।

 

মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, ২০০৫ সালের ২৮ সেপ্টেম্বর পাংশার হাবাসপুর গ্রামের একটি ধানখেতে মৃত অবস্থায় আমেনা খাতুন ওরফে ফেলো নামে এক নারীর মরদেহ পাওয়া যায়। এ সময় তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহৃ পাওয়া যায়।

Ruchi

 

নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের (ভারপ্রাপ্ত) সরকারি কৌঁসুলি (পিপি) অ্যাডভোকেট সাইফুল ইসলাম জানান, সংঘবদ্ধ ধর্ষণের পর আমেনা খাতুনকে শ্বাসরোধে হত্যার পর ফেলে রেখে যায়। এ ঘটনায় নিহতের ভাই বাদী হয়ে মামলা করেন। তদন্ত শেষে ধর্ষণের পর হত্যার দায়ে সাতজনকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট দেওয়া হয়। পরে বুধবার দুপুরে এ রায় দেন। এ সময় একইসঙ্গে প্রত্যেককে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা ও অনাদায়ে আরও ছয় মাসের সশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

এ বিভাগের আরো সংবাদ

আজকের নামাজের সময়সুচী

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৩:৫২ পূর্বাহ্ণ
  • ১১:৫৮ পূর্বাহ্ণ
  • ১৬:৩৩ অপরাহ্ণ
  • ১৮:৪০ অপরাহ্ণ
  • ২০:০৩ অপরাহ্ণ
  • ৫:১৩ পূর্বাহ্ণ
© স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত।। এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা,ছবি,অডিও,ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।।
Design by: POPULAR HOST BD
themesba-lates1749691102