বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ০৩:০৫ পূর্বাহ্ন

ফেনীতে গৃহবধূকে জোর পূর্বক শ্লীলতাহানীর চেষ্টা থানায় অভিযোগ

সংবাদ দাতার নাম
  • প্রকাশের সময় : বুধবার, ২৮ জুন, ২০২৩
  • ৯৪ বার পড়া হয়েছে

ফেনী জেলা দাগনভূঁইয়া উপজেলার ৮ নং জায়লস্কর ইউনিয়নের সিলোনীয়া ধর্মপুর গ্রামের
মোহত আলী মিজি বাড়ীর মৃত মুজিবুল হকের ছেলে বেলাল হোসেন(৫৬) এর স্ত্রী ৪ সন্তানের জননী
তাজ নাহার বেগম (৪০) কে
জোর পূর্বক শ্লীলতাহানীর চেষ্টা করে
একই গ্রামের সৈয়দ মেম্বার বাড়ীর মৃত মন্তু মিয়ার ছেলে সিএনজি ড্রাইভার লম্পট মাঈন উদ্দিন (৩৭)

প্রসন্গত
বেলাল হোসেন সিলোনীয়া বাজারে চাঁনপুর রোড়ে
চা দোকান করেন, সেই সুবাধে তিনি তার পাশের গ্রাম সোনাপুর গ্রামের মোল্লা বাড়ীর মকবুল মেম্বারের ভাই
খাজা আহাম্মদের বাড়ীতে পরিবার নিয়ে ভাড়া থাকেন, একই বাড়িতে আরেকটা ঘরে পরিবার নিয়ে ভাড়া থাকেন লম্পট মাঈন উদ্দিন

বেলাল হোসেন অধিকাংশ সময় থাকেন তার
চায়ের দোকানে,তার স্ত্রী তাজ নাহার ৩ বছর বয়সী
শিশু সন্তানকে নিয়ে ঘরে একা থাকেন

এই সূযোগে গত শুক্রবার ১৯/০৫/২০২৩ইং
দুপুর ১২ টার সময় সিএনজি ড্রাইভার
লম্পট মাঈন উদ্দিন বেলাল হোসেনের স্ত্রী তাজ নাহারকে তার ৩ বছর বয়সী শিশু সন্তানের সামনে দফায় দফায় জোর পূর্বক শ্লীলতাহানির চেষ্টা চালায়
এতে তাজ নাহারের শরীরের ভিবিন্ন স্থানে জখম হয়

এসময় বেলাল হোসেনের স্ত্রী তাজ নাহার সম্মানের ভয়ে কোন শোর চিৎকার করেনি,এক পর্যায়ে ব্যার্থ হয়ে
লম্পট মাঈন উদ্দিন চলে যায়,
এবং কি বিষয়টি কাউকে না জানানোর জন্য তাজ নাহারকে শাসিয়ে যায় ও হত্যার হুমকি দিয়ে যায়।
ওই দিন লম্পট মাঈন উদ্দিনের পরিবার বাড়িতে ছিলোনা।

পরবর্তীতে তাজ নাহার
তার স্বামী বেলাল হোসেনকে বিষয়টি জানায়,
ঘটনার পরের দিন বেলাল হোসেন
বিষয়টি অন্যত্র না জানিয়ে
মোঃ রফিক মিয়া নামের এক ব্যাক্তিকে দিয়ে
লম্পট মাঈন উদ্দিনকে
সিলোনীয়া বেলাল হোসেনের চায়ের দোকানে ডেকে বিষয়টি জিজ্ঞাসা করলে
লম্পট মাঈন উদ্দিন তা অস্বীকার করে চলে যায়

পরবর্তীতে বেলাল হোসেন বিষয়টি
বেলাল হোসেন ও মাঈন উদ্দিনের বাড়িওয়ালা
খাজা আহাম্মদকে জানান,
তিনি কোন বিচার সুরাহা করেন নি
উল্টো বেলাল হোসেনকে বলেন
তুমি পরিবার নিয়ে আমার বাড়ি ছেড়ে চলে যাও,পরবর্তীতে বেলাল হোসেন স্থানীয় মেম্বার ও স্থানীয় ৮ নং জায়লস্কর  ইউনিয়নে লিখিত অভিযোগ করেও কোন সহযোগীতা পাননি।

এবংকি লম্পট মাঈন উদ্দিন আরো বেপরোয়া হয়ে উঠে।

অতঃপর লম্পট মাঈন উদ্দিনের নামে ভিকটিম তাজ নাহার বাদি হয়ে থানায় লিখিত অভিযোগ করেন।পরবর্তীতে দাগনভূঁইয়া থানার ওসির নির্দেশে পুলিশ জোরালো তদন্ত করে। এর পর মাঈন উদ্লদিন আরো বেপরোয়া হয়ে উঠে।

এক পর্যায়ে পুলিশের কঠোর হস্তক্ষেপে ভিকটিম ও লম্পট মাঈন উদ্দিনকে থানায় ডেকে বিষয়টির সঠিক বিচার করা হয়।

তাই আমাদের সকলের উচিৎ অন্যায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করা।

এ বিভাগের আরো সংবাদ

আজকের নামাজের সময়সুচী

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৩:৪৬ পূর্বাহ্ণ
  • ১২:০১ অপরাহ্ণ
  • ১৬:৩৭ অপরাহ্ণ
  • ১৮:৪৯ অপরাহ্ণ
  • ২০:১৫ অপরাহ্ণ
  • ৫:১০ পূর্বাহ্ণ
© স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত।। এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা,ছবি,অডিও,ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।।
Design by: POPULAR HOST BD
themesba-lates1749691102