রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ০৮:৩১ অপরাহ্ন

শ্রমিকদের ঠকানোর জন্য ড.মুহাম্মদ ইউনূসের পক্ষে বিবৃতি দিয়েছে বুদ্ধিজীবীরা:তথ্যমন্ত্রী

সংবাদ দাতার নাম
  • প্রকাশের সময় : সোমবার, ২৮ আগস্ট, ২০২৩
  • ৯৩ বার পড়া হয়েছে

শ্রমিকদের ঠকানোর জন্য ড.মুহাম্মদ ইউনূসের পক্ষে বিবৃতি দিয়েছে বুদ্ধিজীবীরা:তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড.হাছান মাহমুদ

 

২৮ আগষ্ট ২০২৩

Nagad

 

Bengal

 

 

বুদ্ধি খাটিয়ে শ্রমিকদের ঠকানোর জন্য ড. মুহাম্মদ ইউনূসের পক্ষে ৩৪ জন বুদ্ধিজীবী বিবৃতি দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

অনলাইনে গুগল নিউজে ফলো করুন dailybangladesherdak

সোমবার (২৮ আগস্ট) বিকেলে রাজধানীর পান্থপথে জাতীয় শোক দিবস-২০২৩ উপলক্ষে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

টেলিভিশন ক্যামেরা-জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন (টিসিএ) এ আলোচনা সভার আয়োজন করে।

ড. হাছান মাহমুদ বলেন, ড. ইউনূস সাহেবের পক্ষে ৩৪ জন বুদ্ধিজীবীর বিবৃতি দেখলাম। ড. ইউনুস সাহেবের প্রতি যথাযথ সম্মান রেখেই বলতে চাই তিনি একজন জ্যেষ্ঠ নাগরিক এবং নোবেল পুরস্কার পেয়েছিলেন। তিনি শ্রমিকের পাওনা বুঝিয়ে দেন নাই। তার প্রতিষ্ঠানে শ্রমিকদের দেওয়ার কথা ছিল ৫ শতাংশ, যা ১২০০ কোটি টাকার বেশি। সেই ১২০০ কোটি টাকাকে জালিয়াতির মাধ্যমে ঘুষ দিয়ে ৪০০ কোটি টাকা করা হয় এবং সেটাও তিনি দেন নাই। এ জন্য মামলা হয়েছে, তারপর জরিমানা হয়েছে। এখনও মামলা বিচারাধীন। এই পরিস্থিতিতে ৩৪ জন বুদ্ধিজীবীকে বলতে চাই, আপনারা যে বিবৃতি দিলেন, শ্রমিকদের পক্ষে আপনাদের কোনো বক্তব্য নাই কেন? ১২০০ কোটি টাকা শ্রমিকদের পাওনা ছিল সেই পাওনা না দিয়ে সেটা জালিয়াতির মাধ্যমে কমিয়ে ৪০০ কোটি টাকা করা হলো, আর আপনারা সেটার পক্ষে বিবৃতি দিলেন। আপনাদের বুদ্ধিটা কি লোপ পেয়েছে, না কি বুদ্ধি খাটিয়ে শ্রমিকদের ঠকানোর জন্য বিবৃতিটা দিয়েছেন।

Ruchi

এ সময় টিভি ক্যামেরা-জার্নালিস্টদের তথ্যমন্ত্রী বলেন, প্রকৃতপক্ষে টেলিভিশনের প্রাণ হচ্ছে ক্যামেরা সাংবাদিকরা। তারা যদি ভিভিও ধারণ না করে তাহলে টেলিভিশনে যাবে না, সেটা নিউজের শুটিং হোক কিম্বা প্রোগ্রামের শুটিং। তারা ভালো কাজ না করলে প্রযোজক, পরিচালক, নিউজ এডিটর, নিউজ কাস্টারদের কোনো কাজ নাই।

তিনি বলেন, ক্যামেরা সাংবাদিকদের কষ্ট করে রোদে পুড়ে, বৃষ্টিতে ভিজে অনেক প্রতিকূল পরিস্থিতির মধ্যে পড়তে হয়। অনেক সময় অনেকে তেড়ে আসে, ক্যামেরা ভেঙ্গে দেয়। অনেক ক্যামেরা সাংবাদিক নির্যাতনের শিকার হন। এ সমস্ত ঝুঁকি নিয়ে তারা কাজটা করেন। এ জন্য তাদের প্রতি আমি কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি। এই ক্যামেরা সাংবাদিকরা যাতে ঠিকভাবে বেতন পায় সেদিকে নজর দেওয়া ও তাদেরকে প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত সার্বজনীন পেনশন স্কীমের আওতায় আনার জন্য সব টেলিভিশন চ্যানেলের কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ জানাই।

টেলিভিশন ক্যামেরা-জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের (টিসিএ) সভাপতি শেখ মাহাবুব আলমের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক শহিদুল হক জীবনের সঞ্চালনায় সভায় মো. এনামুল হক, প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী ও আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি ওমর ফারুক, ব্রডকাস্ট জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের সদস্য সচিব শাকিল আহমেদ বক্তব্য দেন।

এ বিভাগের আরো সংবাদ

আজকের নামাজের সময়সুচী

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৩:৪৬ পূর্বাহ্ণ
  • ১২:০২ অপরাহ্ণ
  • ১৬:৩৮ অপরাহ্ণ
  • ১৮:৫১ অপরাহ্ণ
  • ২০:১৭ অপরাহ্ণ
  • ৫:১০ পূর্বাহ্ণ
© স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত।। এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা,ছবি,অডিও,ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।।
Design by: POPULAR HOST BD
themesba-lates1749691102